Nirjala Ekadashi 2021: Date, Time, Tithi, Significance, Mahatto, Puja Rules and Other Rituals

Nirjala Ekadashi 2021 Date, Time, Parna Time, Significance, Tithi, Broto Mahatto, Puja Vidhi and Other Rituals: This is Pandava Ekadashi 2021, the another name of Nirjala Ekadashi. Nirjala means “No water or without water” and it is also called নির্জলা একাদশী in Bangla Language. On the other that, this is the most important Ekadashi from all other 24 Ekadashis.

Nirjala Ekadashi 2021

In the meantime, if you looking for Nirjala Ekadashi 2021 Date, Parna Time, পান্ডবা নির্জলা একাদশী ২০২১ সময়সূচি, পারনের সময়, ব্রত মাহাত্ম্য so you are in the perfect article. Here you will get A to Z information regarding the auspicious day of Hindu Religious People who Devotees of Lord Vishnu.

পান্ডবা নির্জলা একাদশী ২০২১

সবাইকে নমষ্কার। যে যেখান থেকে আমাদের ওয়েবসাইট অগ্রনিউজ ডট কম (OgroNews.Com) এ প্রবেশ করেছেন, সবাইকে অসংখ্য ধন্বাদ। আশা করি আপনারা সকলেই ভালো আছেন।

আজকে অনেকেই হয়তো ”নির্জলা একাদশী ২০২১” সময়, পূজার নিয়ম ও পারনের সময় জানার জন্য গুগল বা অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ করতেছেন। আপনিও যদি তাদের মধ্যে একজন হয়ে থাকেন, তাহলে কোন চিন্তার প্রয়োজন নেই। এখান থেকেই আপনি প্রয়োজীনয় সকল তথ্য পাবেন। কেননা, আজকে আমরা ২০২১ সালের নির্জলা একাদশীর সময়সূচি তুলে ধরেছি। Pandoba Nirjala Ekadoshi Time Table.

নির্জলা একাদশী ২০২১ তিথি

এখানে বাংলাদেশ এবং ভারতের সময় অনুযায়ী পূজার সময়সূচি ও পারনের সময় উল্লেখ করা হয়েছে। কিন্তু আপনি যদি মনে করেন যে, আমি ভারতে বসবাস করি, তাহলে আমাদের সময় কি? এটা এই পোষ্ট থেকে বিস্তারিত জানতে পারবেন। তবে আমরা পৃথকভাবে সময় তুলে ধরেছি।

আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন, বাংলাদেশ আর ভারতের সময়ে ৩০ মিনিটের পার্থক্য রয়েছে। আপনি যদি ভারতে বসবাস করেন, তাহলে বাংলাদেশের সময় থেকে ৩০ মিনিট বিয়োগ করলে ভারতের সময় পাবেন। অর্থাৎ এখন যদি বাংলাদেশ সময় ২০ জুন ২০২১ রাত ১১ টা হয়, তাহলে ভারতের সময় হবে ২০ জুন ২০২১ রাত ১০ টা বেজে ৩০ মিনিট। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন।

তাই আর দেরি না করে দেখে নেওয়া যাক নির্জলা একাদশীর সময়সূচি!

নির্জলা একাদশী ২০২১ সময়সূচি

Let’s check Nirjala Ekadashi 2021 from here.

  • বাংলাদেশ সময়:

এই বছর অর্থাৎ ২০২১ সালে নির্জলা একাদশী তিথি শুরু হবে: ২০ জুন বিকাল ৪ টা ৫১ মিনিটে

তিথি শেষ হবে: ২১ জুন দুপুর ২ টা ০১ মিনিটে

  • ভারতের সময় অনুযায়ী তিথি:

একাদশী তিথি শুরু হবে: ২০ জুন বিকাল ৪ টা ২১ মিনিটে

তিথি শেষ হবে: ২১ জুন দুপুর ১ টা ৩১ মিনিটে

এখানে বলে রাখা ভালো ইস্কন’মতে ২০২১ সালের নির্জলা একাদশীর সময়সূচি একই। কিন্তু পারনের সময় একটু ভিন্ন এবং আপনারা ইস্কন’মতে পান্ডবা নির্জলা একাদশী ২০২১ এর পারনের সময় এখান থেকেই জানতে পারবেন।

পান্ডবা নির্জলা একাদশী পারনের সময়

পারানা (Pandoba Ekadhoshi 2021 Parana Time) সময় যেকোন উপবাসের জন্য গুরুত্বপূর্ন বিষয়। তাই আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে পরন এর সময় তুলে ধরেছি। নিচে থেকে সময় দেখে নিতে পারেন;

  • বাংলাদেশ সময়:

নির্জলা একাদশী পারনের সময়: ২২ জুন ২০২১ সকাল ৫ টা ১২ মিনিট থেকে সকাল ৭ টা ৫৬ মিনিটের মধ্যে।

  • ভারতের সময়:

পারনের সময়: ২২ জুন ২০২১ সকাল ৪ টা ৪২ মিনিট থেকে সকাল ৭ টা ৪৬ মিনিটের মধ্যে।

ইস্কন মতে পারনের সময়:

পারনের সময়: ২২ জুন ২০২১ সকাল ৫ টা ১২ মিনিট থেকে সকাল ৯ টা ৪৪ মিনিটের মধ্যে।

ভারতের জন্য সময়: ২২ জুন ২০২১ সকাল ৪ টা ৪২ মিনিট থেকে সকাল ৯ টা ১৪ মিনিটের মধ্যে।

নির্জলা একাদশীর ব্রত মাহাত্ম্য

জ্যৈষ্ঠ শুক্লপক্ষের এই নির্জলা একাদশী ব্রত সম্পর্কে ব্রহ্মবৈবর্তপুরাণে শ্রীভীমসেন-ব্যাসসংবাদে বর্ণিত হয়েছে। মহারাজ যুধিষ্ঠির বললেন- হে জনার্দন! আমি অপরা একাদশীর সমস্ত মাহাত্ম্য শ্রবণ করলাম এখন জ্যৈষ্ঠ শুক্লপক্ষের একাদশীর নাম ও মাহাত্ম্য কৃপাপূর্বক আমার কাছে বর্ণনা করুন।

শ্রীকৃষ্ণ বললেন, এই একাদশীর কথা মহর্ষি ব্যাসদেব বর্ণনা করবেন। কেননা তিনি সর্বশাস্ত্রের অর্থ ও তত্ত্ব পূর্ণরূপে জানেন। রাজা যুধিষ্ঠির ব্যাসদেবকে বললেন- হে মহর্ষি দ্বৈপায়ন! আমি মানুষের লৌকিক ধর্ম এবং জ্ঞানকান্ডের বিষয়ে অনেক শ্রবণ করেছি। আপনি যথাযথভাবে ভক্তিবিষয়িনী কিছু ধর্মকথা এখন আমায় বর্ণনা করুন।

অনেক শ্রবণ করেছি। আপনি যথাযথভাবে ভক্তিবিষয়িনী কিছু ধর্মকথা এখন আমায় বর্ণনা করুন।

শ্রীব্যাসদেব বললেন- হে মহারাজ! তুমি যেসব ধর্মকথা শুনেছ এই কলিযুগের মানুষের পক্ষে সে সমস্ত পালন করা অত্যন্ত কঠিন। যা সুখে, সামান্য খরচে, অল্প কষ্টে সম্পাদন করা যায় অথচ মহাফল প্রদান করে এবং সমস্ত শাস্ত্রের সারস্বরূপ সেই ধর্মই কলিযুগে মানুষের পক্ষে করা শ্রেয়। সেই ধর্মকথাই এখন আপনার কাছে বলছি।

উভয় পক্ষের একাদশী দিনে ভোজন না করে উপবাস ব্রত করবে। দ্বাদশী দিনে স্নান করে শুচিশুদ্ধ হয়ে নিত্যকৃত সমাপনের পর শ্রীকৃষ্ণের অর্চন করবে। এরপর ব্রাহ্মণদেরকে প্রসাদ ভোজন করাবে। অশৌচাদিতেও এই ব্রত কখনও ত্যাগ করবে না। 

যে সকল ব্যক্তি স্বর্গে যেতে চায়, তাদের সারা জীবন এই ব্রত পালন করা উচিত। পাপকর্মে রত ও ধর্মহীন ব্যক্তিরাও যদি এই একাদশী দিনে ভোজন না করে, তবে তারা যমযাতনা থেকে রক্ষা পায়।

শ্রীব্যাসদেবের এসব কথা শুনে গদাধর ভীমসেন অশ্বত্থ পাতার মতো কাঁপতে কাঁপতে বলতে লাগলেন- হে মহাবুদ্ধি পিতামহ! মাতা কুন্তী, দ্রৌপদী, ভ্রাতা যুধিষ্ঠির, অর্জুন, নকুল ও সহদেব এরা কেউই একাদশীর দিনে ভোজন করে না। আমাকেও অন্ন গ্রহণ করতে নিষেধ করে। কিন্তু দঃসহ ক্ষুধাযন্ত্রণার জন্য আমি উপবাস করতে পারি না।

ভীমসেনের এরকম কথায় ব্যাসদেব বলতে লাগলেন- যদি স্বর্গাদি দিব্যধাম লাভে তোমার একান্ত ইচ্ছা থাকে, তবে উভয় পক্ষের একাদশীতে ভোজন করবে না ।

ব্রত মাহাত্ম্য

তদুত্তরে ভীমসেন বললেন- আমার নিবেদন এই যে, উপবাস তো দুরের কথা, দিনে একবার ভোজন করে থাকাও আমার পক্ষে অসম্ভব। কারণ আমার উদরে ‘বৃক’ নামে অগ্নি রয়েছে। ভোজন না করলে কিছুতেই সে শান্ত হয় না। তাই প্রতিটি একাদশী পালনে আমি একেবারেই অপারগ।

হে মহর্ষি! বছরে একটি মাত্র একাদশী পালন করে যাতে আমি দিব্যধাম লাভ করতে পারি এরকম কোন একাদশীর কথা আমাকে নিশ্চয় করে বলুন।

তখন ব্যাসদেব বললেন- জ্যৈষ্ঠ মাসের শুক্লপক্ষের একাদশী তিথিতে জলপান পর্যন্ত না করে সম্পূর্ণ উপবাস থাকবে। তবে আচমনে দোষ হবে না। ঐদিন অন্নাদি গ্রহণ করলে ভ্রত ভঙ্গ হয়। 

একাদশীর দিন সূর্যোদয় থেকে দ্বাদশীর দিন সূর্যাস্ত পর্যন্ত জলপান বর্জন করলে অনায়াসে বারোটি একাদশীর ফল লাভ হয়। বছরের অন্যান্য একাদশী পালনে অজান্তে যদি কখনও ব্রতভঙ্গ হয়ে যায়, তা হলে এই একটি মাত্র একাদশী পালনে সেই সব দোষ দূর হয়। দ্বাদশী দিনে বাহ্মমুহূর্তে স্নানাদিকার্য সমাপ্ত করে শ্রীহরির পূজা করবে। সদাচারী ব্রাহ্মণদের বস্ত্রাদি দানসহ ভোজন করিয়ে আত্মীয়স্বজন সঙ্গে নিজে ভোজন করবে। এরূপ একাদশী ব্রত পালনে যে প্রকার পূণ্য সঞ্চিত হয়, এখন তা শ্রবণ কর।

সারা বছরের সমস্ত একাদশীর ফলই এই একটি মাত্র ব্রত উপবাসে লাভ করা যায়। শঙ্খ, চক্র, গদা, পদ্মধারী ভগবান শ্রীকৃষ্ণ আমাকে বলেছেন- ‘বৈদিক ও লৌকিক সমস্ত ধর্ম পরিত্যাগ করে যারা একমাত্র আমার শরণাপন্ন হয়ে এই নির্জলা একাদশী ব্রত পালন করে তারা সর্বপাপ মুক্ত হয়।

বিশেষত কলিযুগে ধন-সম্পদ দানের মাধ্যমে সদগতি বা স্মার্ত সংস্কারের মাধ্যমেও যথার্থ কল্যাণ লাভ হয় না। কলিযুগে দ্রব্যশুদ্ধি নেই। কলিতে শাস্ত্রোক্ত সংস্কার বিশুদ্ধ হয় না। তাই বৈদিক ধর্ম কখনও সুসম্পন্ন হতে পারে না।

হে ভীমসেন! তোমাকে বহূ কথা বলার আর প্রয়োজন কি? তুমি উভয় পক্ষের একাদশীতে ভোজন করবে না। যদি তাতে অসমর্থ হও। তবে জ্যৈষ্ঠ মাসের শুক্লপক্ষের একাদশীতে অবশ্যই নির্জলা উপবাস করবে। এই একাদশী ব্রত ধনধান্য ও পুন্যদায়িনী। যমদূতগণ এই ব্রত পালনকারীকে মৃত্যুর পরও স্পর্শ করতে পারে না। পক্ষান্তরে বিষ্ণুদুতগণ তাঁকে বিষ্ণুলোকে নিয় যান।

শ্রীভীসেন ঐদিন থেকে নির্জলা একাদশী পালন করতে থাকায় এই একাদশী ‘পান্ডবা নির্জলা বা ভীমসেনী একাদশী’ নামে প্রসিদ্ধ হয়েছে। এই নির্জলা একাদশীতৈ পবিত্র তীর্থে স্নান, দান, জপ, কীর্তন ইত্যাদি যা কিছু মানুষ করে তা অক্ষয় হয়ে যায়। যে ব্যক্তি ভক্তিসহকারে এই একাদশী মহাত্ম্য পাঠ বা শ্রবণ করেন তিনি বৈকুণ্ঠধাম প্রাপ্ত হন।

When will celebrate Nirjala Ekadashi 2021?

We know that Ekadashi (একাদশী) is the auspicious fasting day observed on the 11th Day. That’s why it is called Ekadashi. Nirjala or Pandoba Ekadashi is the fasting day observed on the 11th day of the Krishna Paksha (the waning phase of the moon) during the Bengali month of ‘Boishakh’ in the Hindu calendar. You can check the date from below.

Full Date and Timing of Nirjala Ekadashi

If you fasting on Ekadashi and do not want to miss any of them, so you will be looking for Nirjala Ekadashi 2021 Timing. One of our readers also asked the same question on our Facebook Page.

Now we are going to share the full date and time of Saphala Ekadashi 2021. As we already mentioned that, this Ekadashi celebrated the Bengali Month ‘Boishakh’ and the months of April to May as per the Gregorian calendar. We have added the festival date and timing here as per Dharma Sindhu. So, here is Saphala Ekadashi Time Table.

  • Festival Name: Nirjala Ekadoshi (নির্জলা একাদশী)
  • Festival Date: 21 June 2021
  • Day: Sunday
  • Ekadashi Tithi Begins:  04:51 PM on 20 June 2021
  • Ekadashi Tithi Ends: 02:01 PM on 21 June 2021

So, that’s was the full date and timing for Sophola Ekadashi. We hope you guys will be successfully understood this. However, let’s check the Parna Time.

Pandoba Ekadoshi 2021 Parna Time

Parna Time is the most important thing for every Ekadashi. That’s why we always try to share Parna Time of Saphala Ekadashi.

  • Parna Date: 22 June 2021
  • Parana Time: 05:12 AM to 07:56 AM

We hope you will be understood the parna time from the above discussion. Although, Ekadashi and Parna Time is simply different according to the ISKCON Rules.

About Pandoba Ekadoshi

Conclusion:

So, this is all about Nirjala Ekadashi 2021 Date, Parna Time for Bangladesh, India, and Nepal. We hope you guys will be successfully understood this article.

For Breaking News, Education News, Entertainment, Technology News Bookmark OgroNews.Com to get the latest updates.

Related News

Author: Ogro Team

This is the Team of OgroNews.Com. Most of the articles have been published by them. You may follow their official Twitter handle @ogronews21 to get update news.

2 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *